তিন দলের ওয়ানডে টুর্নামেন্টের সব ম্যাচ দিবা-রাত্রির ( Bangladesh Cricket News)

ছয় মাস বিরতির পর দেশে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট ফিরছে মাঠে। তিনটি দল খেলবে ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টে।

১১ অক্টোবর মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা ছাড়াও হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) এবং ২০২০ আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দলের কয়েকজন নির্বাচিত খেলোয়াড় অংশ নেবেন।

কোভিড-১৯ মহামারীর জেরে মার্চ থেকে বন্ধ থাকা ক্রিকেট ফের মাঠে ফেরাতে এই উদ্যোগ নিয়েছে বিসিবি। মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্ট শুরুর ঘোষণা দেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, নাজমুল হোসেন শান্ত ও তামিম ইকবাল তিন দলের নেতৃত্ব দেবেন। ফাইনালসহ মোট ছয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। খেলা শুরু হবে বেলা ১টা ৩০ মিনিটে। প্রতিটি দল দু’বার মুখোমুখি হবে পরস্পরের। শীর্ষ দুটি দল ফাইনালে খেলবে ২৩ অক্টোবর। দিবা-রাত্রির সব ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে প্রতিটি ম্যাচের রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে। করোনাকালে সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সব খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ, ম্যাচ অফিশিয়াল এবং মাঠকর্মীসহ ম্যাচ সংশ্লিষ্ট সবাইকে জৈব সুরক্ষাবলয়ে রাখা হবে।

টুর্নামেন্টে খেলছেন না মাশরাফি মুর্তজা। তার না খেলা সম্পর্কে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘মাশরাফি করোনা আক্রান্ত হয়েছিল। ধকল এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি সে। সে কারণে মাশরাফি নিজেও এই টুর্নামেন্টে খেলতে ইচ্ছুক নয়।’

তিনি বলেন, ‘এরপর পাঁচ দলকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে টি ২০ টুর্নামেন্ট। তবে এটা কর্পোরেট লিগ হবে, না গত বিপিএলের মতো বিসিবির ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হবে, আমি বলতে পারছি না। বিষয়টা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।’ বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, পাঁচ দলকে নিয়ে টি ২০ টুর্নামেন্ট শুরু হবে মধ্য নভেম্বরে। বিদেশি ক্রিকেটাররা খেলতে পারেন সেখানে। সাকিবও খেলবে। প্রতিটি দলে ১৫ জন করে ৭৫ জন খেলোয়াড়কে খেলার সুযোগ করে দিতে পারি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *